ঢাকারবিবার , ২৮ নভেম্বর ২০২১
  1. গল্প
  2. চারপাঁশে
  3. ভালবাসার খুনসুটি
  4. ভালবাসার গল্প
  5. রাজ রানী

স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-৫

গল্পিবাজ ডেস্ক
নভেম্বর ২৮, ২০২১ ৬:৫৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

স্বপ্নের রানী! এভাবে আমাদের রিলেশনের বয়স প্রায় ছয় মাস হয়ে গেল একদম ঠিকঠাক ভাবে চলছে বাজে বাজে আমি ওর উপর অনেক বেশি রাগ করে ফেলে প্রচুর কথা বলে আমার বেশি কথা ভাল লাগে না আবার বাজে বাজে আমার কিছু কিছু জিনিস ওর কাছে খারাপ লাগে ও রাগ করে আবার আমি রাগ ভেঙ্গে যাবে আমাদের খুনসুটি চলতে থাকে আমাদের খুনসুটি বয়স ছয় মাস হয়ে গেছে কিন্তু আমার বাসায় কেউ জানে না আর রুপার বাসায় কেউ জানে না কেননা আমরা দেশে এত বেশি ঘোরাঘুরি করতাম না তাছাড়া আমরা অনেক সময় গভীর রাতের দিকে কথা বলতাম যার জন্য বিষয়টা এভাবে প্রকাশিত হয়নি।

এভাবে আমাদের কথা বলার ভাব ধর চরন সবকিছু ঠিকঠাক ভাবে যাচ্ছিল একদিন আমি ভার্সিটিতে যাইনি পারিবারিক সমস্যার জন্য পারিবারিক সমস্যা দিছিলো আমার আম্মুকে নিয়ে আম্মু অসুস্থ থাকায় ভার্সিটিতে যাওয়া হয়নি আমরা মাত্র দুই ভাইবোন আমার একটা বোন আছে আমার ছোট বাসায় থাকে আম্মুকে সহযোগিতা করে। কিন্তু ভার্সিটিতে যায়নি সেটা রুপাকে বলা হয়নি রুপা আমার জন্য অপেক্ষা করেছে বোকা মেয়েটা আমাকে ফোন পর্যন্ত করেনি রুপা জানত যে আমি ভার্সিটিতে এসেছি এবং ওর সাথে দেখা করার জন্য কেন্টিনে আসবো দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করার পর আমাকে যখন ফোন করে তখন আমি বিষয়টা বলি এই নিয়ে রাগ করে রাগ করে বাসায় ফিরে যায় এবং ফোন বন্ধ করে রাখে বুঝতে পারছি ছোট্ট মেয়েটার অনেক বেশি রাগ ভাঙানো রাতে ফোন দিয়ে কথা বলার চেষ্টা করে কিন্তু ফোন তুলে না কয়েকবার কল দেয়ার পরও ওর সাথে আমি যোগাযোগ করতে পারলাম না।

আরো পড়ুনঃ  স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-১০

স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-৬

অনেকবার চেষ্টা করার পরও যখন যোগাযোগ করতে পারলাম না তখন ব্যর্থ হয়ে কি করবো ঘুমিয়ে পড়লাম যদিও মনটা ভীষণ খারাপ কারণ ইদানিং আমি ওর সাথে কথা না বলে থাকতে পারছি না প্রচুর ভালোবাসি মেয়েটা কে এই ছোট্ট মেয়েটাকে এতো বেশি কেন ভালোবাসি আমি নিজেও বুঝতে পারছি না। স্বপ্নের রানী! এভাবে ভালোবাসারই চলতে থাকতে থাকতে একপর্যায়ে ভালোবাসার আপডেট চলে এসেছে।

মেয়েদের পর্যাপ্ত বয়স হলেই বিয়ের জন্য বাসা থেকে তারা দেয় অনুরূপভাবে প্রিয়াকে ও বাসা থেকে বিয়ের জন্য তাড়া দিচ্ছে বিয়ের জন্য বাসা থেকে বলা হচ্ছে প্রিয়া যদিও বেশ কয়েকবার বিষয়টি আমাকে জানিয়েছে কিন্তু গুরুত্বসহকারে বিষয়টি না দেখার জন্য তুই আমাকে বারবার বকা দিয়েছে তারপরও আমি বিষয়টি নিয়ে এত মাথা ঘামাইনি আমরা সবসময়ই মেয়েটাকে ছোট মনে হত আমার মনে হয় বয়স্কদের জন্য কি হবে।

আরো পড়ুনঃ  স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-৯

কিন্তু যথাসময়ে ওর বয়স ছিল ১৯ বছর। বুঝতে পারছি না কিভাবে আমি এই সময়ে রুপার পাশে দাঁড়াবো আর আমি বিষয়টা বন্ধুদের সাথে আগের শেয়ার করিনি একা চিন্তা করে ভেবে পাচ্ছি না পরে ব্যর্থ হয় বন্ধুদের কাছে শেয়ার করলাম। স্বপ্নের রানী! আমার সব কয়টা বন্ধু খুবই ভাল ওদের সাথে আমি সময় পেলেই সময় কাটাই ওরা আমাকে খুবই ভাল জানি এবং ওদের বুদ্ধিতে আমার কাছে খুব ভালো লাগে ওরা আমাকে বললো যে আমাকে এখন বিয়ে করে নিচ্ছি কিন্তু আমি বিয়ের জন্য মোটেও প্রস্তুত না তাছাড়া বাসার এই পরিস্থিতিতে আমি কখনোই বিয়ে করতে পারবোনা। স্বপ্নের রানী!

আমার বন্ধুর নাম কি বললাম দেখো নাই আমার দ্বারা বিয়া করা সম্ভব না কেননা আমার একটা ছোট বোন আছে ওর আর কয়েক বছর পরে বিয়ে দিতে হবে আমি এখনও বেকার আমি এখনো পড়াশোনা শেষ করতে পারিনি বাবার টাকায় কয়দিন চলবা বাড়ি ছোট্ট চাকরি যে কোন সময় শেষ হয়ে যেতে পারে তার উপর ভরসা করে আমি এখন বিয়ে করতে পারবোনা। স্বপ্নের রানী! তুমি অন্য একটা আইডিয়া দাও আমাকে। স্বপ্নের রানী!

আরো পড়ুনঃ  স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-৪

এভাবে আমাদের মাঝে কথা বলতেই থাকলাম কিন্তু কোন আইডি আর খোঁজ পেলাম না। মাথায় কোন নতুন আইডিয়া না আসায় বুঝতে পারলাম না কি করবো আমি রূপাকে বলে দু’দিন সময় নিলাম আমি বলছি দুদিন পরে তোমাকে আমি জানাবো ভালো মন্দ যে কোন একটা আপনার জানাব কিন্তু এই দুদিন আমি কি করবো সেটা বুঝতে পারছি না মাঝে মাঝে মনে হচ্ছে আমি বাসায় বিষয়টা জানাই আমার মাঝে মাঝে সাহস হচ্ছে না কারণ এমন সিচুয়েশনে আমি আগে কখনো পড়িনি।

বিষয়টি কারো সাথে শেয়ার করতে পারছিনা কারণ একটা ভালো ছেলে কখনো এই কাজের সাথে সম্পৃক্ত হয় না আবার হলেও এই ঝামেলায় কখনো পড়ে না কিন্তু আমি পড়ে গেছি আমি এখন কি করবো কিছুই বুঝতে পারছিনা। স্বপ্নের রানী!

এই গল্পের পরবর্তী পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন। গল্পটি কেমন হয়েছে অবশ্যই আপনার মতামত জানাতে ভুলবেন না।