ঢাকারবিবার , ২৮ নভেম্বর ২০২১
  1. গল্প
  2. চারপাঁশে
  3. ভালবাসার খুনসুটি
  4. ভালবাসার গল্প
  5. রাজ রানী

স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-৩

গল্পিবাজ ডেস্ক
নভেম্বর ২৮, ২০২১ ৬:৫৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আমি হুট করে জিজ্ঞেস করে বসলাম আচ্ছা রুপা তুমি আমার নাম্বার কিভাবে সংগ্রহ করলে? মেয়েটি বলল নাম্বার স্বপ্নের সংগ্রহ করা এই ডিজিটাল যুগে টেকনোলজির যুগে কোন কষ্ট করে না আমি খুব সহজেই কালকে আপনার নাম্বার সংগ্রহ করে ফেলেছি। আমি বললাম ও আচ্ছা ঠিক আছে আর আমি এখনো পুরোপুরি ভাবে ডিসিশন নিতে পারিনি আমি তোমাকে অবশ্যই জানাবো।

এই বলে আমি ফোনটা কেটে দিব এরমধ্যে বলল ভাইয়া ফোনটা কাটবেন না আমি আপনার সাথে এক মিনিট কথা বলতে চাই আমি বললাম হ্যাঁ বল কি বলতে চাও বেটিফুল্ল স্বপ্নের গুরুত্বপূর্ণ কোন কথা নয় আপনার ভয়েস আমার কাছে খুবই ভালো লাগে। স্বপ্নের আমি বললাম ও আচ্ছা এই কথা তুমি তো খুবই প্রশংসা করতে পারো আমার প্রশংসা গুলো খুবই শোচনীয় খুবই ভালো লাগে।

আমি বললাম ঠিক আছে তোমার কোন প্রশ্ন থাকলে করো আসলে মাত্র ঘুম থেকে উঠলাম হঠাৎ করে ঘুম ভেঙে গেল তাই আমার মাথায় নতুন কিছু আসছে না তোমার মাথায় কিছু থাকলে সেগুলো বল। বেটি আমাকে হুট করে প্রশ্ন করে বসলো যে ভাইয়া আমি আপনাকে এখনও ভাইয়া বলে ডাকছি আপনি মাইন্ড করবেন না আমি একটা প্রশ্ন করতে চাই আমি বললাম অবশ্যই বলো তুমি মেয়েটি বলল!

আরো পড়ুনঃ  স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-৪

স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-৪

আপনি বর্তমানে কোন রিলেশনে আবদ্ধ আছেন কি? স্বপ্নের আমি বললাম না একদমই না থাকতাম তাহলে তোমাকে তখনই বলে দিতাম আসলে মেয়েটির সবকিছুই আমার কাছে খুব বেশি ভালো লাগে যার জন্য আমি সাথে সাথে মেয়েটিকে রিজেক্ট করে দেইনি কারন মেয়েটিউ আমার ভালো লাগে।

আমি বললাম আচ্ছা রুপা আমি এখন উঠবো ফ্রেশ হব খাওয়া-দাওয়া শেষ করে ভার্সিটি তে আসব তখন কথা হবে এখন রেখে দিচ্ছি তুমি ভালো থেকো। স্বপ্নের বেটি বললোঠিকআছে ভার্সিটিতে আসেন আর আসবে কিন্তু আমি আপনাকে ভার্সিটির ক্যান্টিনের ট্রীট দিব অবশ্যই আজকে আমি আপনাকে খাওয়াবো আমি বললাম ও আচ্ছা ঠিক আছে অবশ্যই আমি প্রস্তুত।

আমি এসেই দেখি মেয়েটি খুবই দ্রুত চলে আসলো এবং টিফিন টাইমে দুটো ক্যান্টিনে চলে আসলো আমি এসেই দেখে মেয়েটি অপেক্ষা করছে তুমি কারো জন্য অপেক্ষা করতে ভালই লাগে। স্বপ্নের আমি বললাম ও আচ্ছা তাই নাকি খুবই ভালো। আমি বুঝতে পারলাম মেয়েটির খারাপ নয় তাছাড়া আমি এই মেয়েটিকে মনে মনে অনেক আগে থেকেই ফলো করি আর এখন যখন সুযোগ পেয়েছি কোনভাবেই আমি হাতছাড়া করছি না আসলে লেখাপড়ার মধ্যে টাইম পাস ভালোবাসা এগুলোর মন-মানসিকতা আমার একদমই ছিল না।

আরো পড়ুনঃ  স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-১০

মেয়েটিঃ বেশ কতগুলো খাবারের অর্ডার দিল মামা খাবার নিয়ে আসলো খাবার দিল আমি খেতে থাকলাম মেয়েটির খেতে থাকলো খাবার মধ্যে সে কত প্রশ্ন করতে লাগল স্বপ্নের আমি সব প্রশ্নের উত্তর দিতে লাগলাম কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে আমি কোন প্রশ্ন করছি না রে ভাই আপনি কি রাগ করছেন আপনি তো কোন প্রশ্নই করছেন না আমি বললাম তুমি এত প্রশ্ন করতেছি এর মাঝে আমি প্রশ্ন করার সুযোগ পাচ্ছি না তো।

মেয়েটি বলল আচ্ছা আমি কি আপনাকে বেশি বিরক্ত করে ফেলতেছে বললাম বেশি বিরক্ত হচ্ছি না তবে তুমি একটু বেশি কথা বল এটা বোঝা যাচ্ছে মেয়েটি বলল হ্যাঁ আমি একটু বেশি কথা বলি এটা আমিও বুঝতে পারি কিন্তু এত কথা বলার জন্য বাসায় আমার কেউ নেই বাসায় শুধু আম্মু আছে আব্বু সারাদিন অফিস নিয়ে ব্যস্ত থাকেন তাই এত বেশি কথা বলার সুযোগ আমি কোথাও পাই না যেটা আপনার সাথে আমি বলতে পারি আমি বললাম তোমার সাথে রিলেশন হওয়ার পরে তো আমার কথা শুনতে শুনতে অবস্থা বেহাল হয়ে যাবে কি বলল তা অবশ্য হতে পারে। স্বপ্নের!

আরো পড়ুনঃ  স্বপ্নের রানী সেই তুমি পর্ব-৯

আমি বললাম আমি আবার বেশি কথা পছন্দ করি না এটা কি সমস্যা নাকি বল তাহলে আমি একদমই কথা বলব না তাও আপনি আমাকে রিজেক্ট করবেননা এবং আপনার ডিসিশন জানান আমারে প্লিজ আমি বললাম ঠিক আছে তবে তোমার পড়ালেখার মধ্যে যেন কোন ইফেক্ট না আসে এগুলো তোমাকে খেয়াল রাখতে হবে শুধু রিলেশন করার মধ্যে যদি তোমার পড়ালেখার মধ্যেই ফের চলে আসে তাহলে এর জন্য কিন্তু আমি নিজেকে নিজে ক্ষমা করতে পারবোনা তাই রিলেশন তোমার পার্টটাইম এটা শুধুমাত্র ফ্রি সময় তুমি আমাকে আমার সাথে কথা বলবে আর হ্যাঁ ভালোবাসাটা খারাপ কোন কাজে ব্যবহার করব না তোমাকে মনে রাখতে হবে।

এই গল্পের পরবর্তী পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন।