ঢাকাশনিবার , ২৭ নভেম্বর ২০২১
  1. গল্প
  2. চারপাঁশে
  3. ভালবাসার খুনসুটি
  4. ভালবাসার গল্প
  5. রাজ রানী

ভালোবাসার রাজরানী আমার পর্ব-৮

গল্পিবাজ ডেস্ক
নভেম্বর ২৭, ২০২১ ১০:৫১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ভালোবাসার রাজরানী আমার গল্পের পূর্ববর্তী পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন। গল্পগুলো ইনজয় করুন এবং কমেন্ট করে আপনার মতামত জানিয়ে দিন। রাজরানী আমার

সত্যি বললাম তাহলে ফাইনালি আমরা এখন গার্লফ্রেন্ড বয়ফ্রেন্ড স্টক বলল হ্যাঁ তবে আমার কিছু শর্ত আছে আমি বললাম এখানে আবার শর্ত কি থাকতে পারে এরশাদ বলে দেখো বিয়ের আগে কোন রকম শারীরিক সম্পর্কে আমি জানতে পারবো না তাছাড়া বিয়ের আগে বাসার বাইরে কোথাও যাওয়া অর্থ বাসার বাইরে কোথাও রাত কাটানো আমার দারা সম্ভব না আমি বললাম আচ্ছা তুমি কি অন্যান্য ছেলেদের মতো নয় ভালবাসার মত আমার ভালোবাসাটা মনে হচ্ছে বলুন না তবে আমি বলে রাখলাম যেন তোমার মাথায় সবসময় এড়িয়ে গুলো থাকে আমি বললাম ঠিক আছে অবশ্যই। রাজরানী আমার

স্যারকে বললাম আচ্ছা একটা পার্টি দেওয়া যেতে পারে কিন্তু সে বলল না ভার্সিটিতে এগুলো জানাজানি হলে সবাই আমাদের নিয়ন্ত্রণ করবে হয়তো বিভিন্ন মানুষ বিভিন্ন মন্তব্য করবেন কারণ আমি জানি আমার পেছনে অনেক ছেলেরা ঘুরঘুর করে বিষয়টা আমি লক্ষ্য করি কিন্তু কাউকে পাত্তা দেয় না তাই অনেক এই বিষয়টা নিয়ে রাগান্বিত হবে আর কাকুর নতে হলে অনেক ঝামেলা হয়ে যাবে তাই এটা সাভার বাজার এভাবে প্রচার করার প্রয়োজন নেই তোমাকে আমি ভালোবাসি তুমি আমাকে ভালোবাসো এটা তো আমরা জানি তাহলে আর কি এভাবে হলেই তো হচ্ছে আমি বললাম ঠিক আছে তুমি যা ভালো দেখে এটাই হবে। রাজরানী আমার রাজরানী আমার

আরো পড়ুনঃ  ভালোবাসার রাজ রানী আমার সর্বশেষ পর্ব

এভাবে আমাদের ভালোবাসার চলতেই থাকল এবং ভালোবাসার একপর্যায়ে দেড় বছর হয়ে গেল আমাদের ভালোবাসার বয়স এর মধ্যে কোন ধরনের সমস্যা অর্থাৎ বড় ধরনের কোনো সমস্যা হয়নি অনেক বেশি রাগা-রাগি হয়েছে ঝগড়া হয়েছে তবে সেগুলো আবার খুব অল্পসময়ের মধ্যে মিশে গিয়েছে এর মধ্যে আমার আম্মু আর আমি দুজনেই জানে যে আমরা দুজনে দুজনকে খুব বেশি ভালোবাসি আবার বিশেষ সময় আম্মুর আম্মু মাঝে মাঝে ফোনে আলাপ করে আমার আব্বু জানে কিনা এ বিষয়ে অবগত না হয়তো জানে আম্মু বলেছে কিন্তু সে বিষয়েও জানেনা। রাজরানী আমার

ভালোবাসার রাজরানী আমার পর্ব-৭

একদিন যে ঘটনা হয়েছিল সেটার জন্য আমি মোটেও প্রস্তুত ছিলাম না হয়তো সেখানে আমাদের ভালবাসাটা বেগে যেতে পারত কিন্তু যায়নি সেটা আমাদের কপাল সেটা আমাদের ভাগ্য। আমি ভার্সিটি শেষে কেন্টিনে বসে আছি ইসরাত আসার অপেক্ষায় আমরা আমাদের রিলেশন আবদ্ধ হওয়ার পরে ভার্সিটিতে পড়তে দিন এক টেবিলে খাবার খেতাম বিষয়টা অনেকেই হয়তো বা বুঝতে পারত কিন্তু কেউ কিছু মন্তব্য করতো না মন্তব্য করলেও সেটা আমাদের সামনে করত না। রাজরানী আমার

আরো পড়ুনঃ  ভালোবাসার রাজরানী আমার পর্ব-৯

আমি রাতের অপেক্ষায় বসে আছি আসছে না হয়তো ওর খেলা শেষ হয়নি আমি খাবার অর্ডার করে বসে আছি এরমধ্যে আমার ক্লাসের একটি মেয়ে এসে সামনে বসল এবং বলল কি ভাইয়া কারো জন্য অপেক্ষা করছেন নাকি আমি লক্ষ্য করতাম এই মেয়েটির সাথে আমায় দেখে বেশ দ্রুত এবং কেমন নজরে তাকাতেন আমি অপেক্ষা করছি এটা বুঝতে পারছি বুঝতে পেরে সামনের টেবিলে বসে বলল আমি বুঝতে সমস্যা নেই তো আমি বললাম না বলেন কিছু বলার থাকলে। রাজরানী আমার

মেয়েটির নাম ছিল যারা, যারা বলল আমি বসে সমস্যা করতেছি না তো আমি বললাম সমস্যা নেই তবে আপনার কোন কিছু বলার থাকলে বলুন। যারা বলল আচ্ছা আপনি কি লক্ষ্য করে না যে আমি আপনাকে আড়ালে কিংবা যেকোন ভাবে দেখি আপনাকে ফলো করি আমি বললাম না দেখিনি তবে আমাকে কেন ফলো করেন কিছু বলবে না হয়তো বা এজন্য আপনি চাইলে এখন বলতে পারেন আমাকে। যারা নির্লজ্জের মত হুট করে বলে ফেলল আপনাকে আমি ভালোবাসি। রাজরানী আমার

আমি হতভম্ব হয়ে গেলাম আমি কিছু বুঝতে পারলাম না এই মেয়ে কি বলে ইংল্যান্ডের মতো প্রথম দেখাতেই ভালোবাসা দিয়েছ আমি বললাম এটাই কি আপনার বলার ছিল যারা বলল হ্যাঁ এটা বলার জন্য আমি আপনার সাথে দেখা করতে চেয়েছিলাম আর আজকে মনে করলাম আমি ওর সাথে কথা বলতে চাই দূরে দাঁড়িয়ে দেখতে পাচ্ছে হয়তো আমি ফলো করছি না। সে বিষয়টা সেভাবেই নিতাই হেসে হেসে কথা বলতেছি বিষয়টি দূর থেকে দেখে প্রচুর রাগান্বিত হলো আমি ওর দিকে তাকাতেই বুঝতে পারলাম সচল রাখছে। রাজরানী আমার

আরো পড়ুনঃ  ভালোবাসার রাজরানী আমার পর্ব-৪

যারা কে বললাম ঠিক আছে আপনি আসতে পারেন আমি ভেবে দেখব এটা বলার পরে যারা জোরে হাসি দিল হে দিল ওখান থেকেই লাশের বাকি অংশ না করে বাসায় ফিরে গেল বাসায় ফিরে গিয়ে ফেসবুক যোগাযোগের মাধ্যমগুলো বন্ধ করে রাখো আমি কোন ভাবে যোগাযোগ করতে পারলাম না। আমি যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছে কিন্তু কোনভাবে সম্ভব হচ্ছে না কি করব বুঝতে পারছি না এর মধ্যে আমি ওর বাসা চিনলো ওর বাসায় কখনো চাইনি ওর বাসার সামনে এসে ওকে নামিয়ে দিয়েছিল ওখান থেকে আমার মনে আছে কিন্তু এই অবস্থায় ওর বাসায় যাওয়ার জন্য মোটেও ঠিক হবে না আমি বুঝতে পারছি।

এই গল্পের বাকি পর্বগুলো পড়তে এখানে ক্লিক করুন এবং আপনার মতামত জানাতে ভুলবেন না এবং আপনার মতামতের উপর ডিপেন্ড করে গল্পের বাকি পর্বগুলো তৈরি হবে। রাজরানী আমার