ঢাকাশুক্রবার , ২৬ নভেম্বর ২০২১
  1. গল্প
  2. চারপাঁশে
  3. ভালবাসার খুনসুটি
  4. ভালবাসার গল্প
  5. রাজ রানী

ভালবাসার তাজমহল পর্ব-৬

গল্পিবাজ ডেস্ক
নভেম্বর ২৬, ২০২১ ৮:৪৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ভালবাসা গল্পের পূর্ববর্তী পর্ব গুলো পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

প্রায় ১০ মিনিট হয়ে যাচ্ছে মুনিয়ার সাথে আমি ঝগড়া করে যাচ্ছে এবং মুনিয়া নিজেও আমার সাথে ঝগড়া লেগেই আছে আমি বললাম বা একদিনে বেশ ঝগড়াটে হয়ে গেছেন আপনাকে তো দেখে বোঝাই যাচ্ছে না আপনি এত বেশি ঝগড়া করতে পারেন বিয়ের পর না জানি কত কিছু করতেন যাক আল্লাহ আমাকে বাঁচিয়েছে বিয়ের আগেই বুঝতে পেরেছি এই মেয়ে ঝগড়াটে। ভালবাসা

উনি আমাকে বলল ও আচ্ছা তাই নাকি তার মানে আমাকে বিয়ে করবেন না বিয়ে করার জন্য অন্য পাত্রী রেডি আছে আপনার ঠিক আছে তাহলে কেন এখানে এসেছেন চলে যাচ্ছে না কেন। আমি বললাম চলে যাওয়ার জন্য তো আসেনি তোমাকে নিয়ে এরপরে আমি এখান থেকে যাব না বুলিয়ে বলল আচ্ছা তাই নাকি তার চেষ্টা করে দেখেন। এরপরে আমি ওকে টেনে খুলে নেয়ার চেষ্টা করলাম মুনিয়া হেসে দিল এবং আমি বুঝতে পারলাম হয়তো ভাষার শব্দ আন্টি শুনতে পাবে তাই আমি ছেড়ে দিয়ে বললাম নিব নাকি রাখবো দুনিয়া বলো ঠিক আছে এখন রাখেন আর বলেন কেন আসছেন। ভালবাসা

আরো পড়ুনঃ  ভালবাসার তাজমহল পর্ব -২

আগের থেকে মরিয়া অনেকটা হাসিমুখে হয়ে গেছে অর্থাৎ আমি বুঝতে পেরেছি ওর রাগ অনেক টা ভেঙে গেছে আমি বললাম তুমি কি বুঝতে পারছ তুমি কেন আমার সাথে রাগ করছো ওই মেয়েটা শুধু আমার ক্লাসের ফ্রেন্ড ফ্রেন্ড বলছে ওদের সাথে আমি কখনো আড্ডা দেই নি কখনো কোনো কথা বলিনি শুধুমাত্র আমার ক্লাসে পড়ে এটাই এর থেকে বেশি কিছু না ও যখন দেখে আমার সাথে তুমি বসে আছো তখন ও ছিলো আমাদের সারপ্রাইজ অর্থাৎ তোমাকে সারপ্রাইজ দেওয়ার জন্য তাই এই কথাটা বলেছে কিন্তু সারপ্রাইজ বলবে এর আগে তুমি ওখান থেকে উঠে চলে এসেছো। ভালবাসা

ভালবাসার তাজমহল পর্ব-৫

সারপ্রাইজ দেওয়া হলো না বরং আমি নিজেই সারপ্রাইজ হয়ে গেলাম। মুনিয়া বলল এটা কি সত্যি কথা নাকি অন্যকিছু আমি বললাম ঠিক আছে এটা অন্য কিছু আজকে চলো আবার ওই রেস্টুরেন্টে যাই ওখানে আবার দেখি ওই মেয়েটা আছে কিনা মুনিয়া গুলো ঠিক আছে যেতে হবে না আমি বাচ্চা তোমার ফোন করি মুনিয়া বলল আমার ফোন কোথায় জানিনা আমি বললাম ফোনটা খুঁজে তো ফোনটা খোলা নাকি বন্ধ নিয়ে বলল সম্ভবত বন্ধ এরপরে ফোনটা খুঁজে পেল টেবিলের উপরে আমি বললাম ফোন বন্ধ করে রেখেছো তাহলে তাহলে এই ফোন চালানোর কি দরকার এটা বন্ধ করে রাখো সব সময়। ভালবাসা

আরো পড়ুনঃ  ভালবাসার তাজমহল শেষ পর্ব

মুনিয়া বলল হ্যাঁ বন্ধ করেই রাখা উচিৎ কারণ আমাকে তো কেউ কখনো ফোন করে না আমি যার জন্য ফোন ব্যবহার করি সে অন্য মেয়েদের সাথে ডেটিং করে অন্য মেয়েদের সাথে চ্যাটিং করে হয়তো আমি বললাম চ্যাটিং কিভাবে করি আমার ফেসবুকের পাসওয়ার্ড তুমিতো জানো তুমি তো মাঝে মাঝে চেক করো আমি তো এটা লক্ষ্য করি যখন তুমি তোমার ফোনে আমার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট লগইন করো তখন আমি লগইন অ্যালার্ট দেখতে পাই মনে বলল ও আচ্ছা তাই নাকি অনেক সিস্টেম করে রেখেছেন আমি বললাম সিস্টেম করে রাখিনি এটা ফেসবুক করেছে বরং আমিও তো বুঝতে পারি। ভালবাসা

মুনিয়া বলল একা এসেছেন নাকি অন্য সাথে করে আপনার আম্মু আব্বুকে নিয়ে এসেছেন আমি বললাম আম্মুকে ছাড়া নিয়ে আসবো এখানে কি বিয়ের প্রস্তাব দিতে এসেছি উনি বলল হ্যাঁ হতেও তো পারে আমি বললাম না আমি আর আমার বন্ধু এসেছে বলল আচ্ছা উনি কই আছে আমি বললাম ড্রয়িংরুমে বসে আছে। ভালবাসা

আরো পড়ুনঃ  ভালবাসার তাজমহল পর্ব-৮

মুনিয়া বলল ঠিক আছে আমি ফোন করতেছি এখন খাবার খেয়ে দুটো কেটে পড়ুন আপু বাসায় ফিরলাম আর অন্য কিছু ভাবতে লাগবে পরে আবার আম্মুকে বকা দিবে আমি বললাম না আবার খাবো না আজকে আমি চলে যাচ্ছি তুমি পরবর্তী সময়ে যদি তোমার ফোন কখনো বন্ধ পাই তাহলে আর আসবো না আমি উপরে চলে যাব। ভালবাসা

মুনিয়া বলল উপরে যাওয়ার জন্য টিকিট কেটে রেখেছেন নাকি? আমি বললাম হ্যা ঠিকই তো আগেই কেটে রেখেছি কিন্তু সেটা শুধু আমার একার জন্য অন্য কাউকে আমার সাথে নিব না মনিও বললো দুটো দেখে থাকেন আপনি গেলে আমাকে নিয়ে যাবেন সাথে আমি বললাম না শুধুমাত্র আমি একাই যাবো তুমি থাকো। ভালবাসা

এগুলো বলে ওর ফোন খুলে দিয়ে আমি বাসা থেকে আন্টিকে বলে বেরিয়ে আসলাম এর পরে বাসায় চলে আসলাম খাওয়া-দাওয়া করলাম এখন করলাম।