ঢাকাশুক্রবার , ২৬ নভেম্বর ২০২১
  1. গল্প
  2. চারপাঁশে
  3. ভালবাসার খুনসুটি
  4. ভালবাসার গল্প
  5. রাজ রানী

ভালবাসার তাজমহল পর্ব-৫

গল্পিবাজ ডেস্ক
নভেম্বর ২৬, ২০২১ ৮:৪৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ভালবাসার তাজমহল পর্ব গল্পের পূর্ববর্তী পর্ব গুলো পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

সাইম একটু গ্রেপ্তার ও কারো কথা শোনে না যেটা করবে সেটা করবেই আমি বিষয়টা বুঝতে পারলাম ও আমার কথায় মোটেও মনোযোগ দিচ্ছে না ঠিক আছে আমি চুপ করে থাকলাম ও ওদের বাসার সামনে গিয়ে দাঁড়ালো এবং দারোয়ান আমাকে সহজেই চিনতে পারো কারন আমি প্রায় সময় ওদের বাসার সামনে ওকে নেয়ার জন্য আসতাম আবার কোথাও ঘুরতে যাওয়ার ফলে ওকে বাসার সামনে নামিয়ে দিয়ে যেতাম তখন দারোয়ান আঙ্কেল আমাকে দেখতে এবং মুচকি মুচকি হাসি দিত।

বাসার সামনে নেমে দেখি দারোয়ান আঙ্কেল এবং আমার সাথে আমার বন্ধুকে দেখে আঙ্কেল বলল বাসার মধ্যে যাবে আমি বললাম হ্যাঁ আঙ্কেল যাব আংকেল বলে ঠিক আছে যাও। দারোয়ান আঙ্কেল আমাকে এবং বন্ধুকে বাসের মধ্যে যেতে বলল এবং সাইম সামনে আমি পিছনে হাটতে ছি ফুট করে সাইম বাসার মধ্যে ঢুকে গেল ঢোকার পরে আমি লক্ষ করলাম ওর আব্বু বাসায় নেই আংটি অর্থাৎ ওর আম্মু রান্না বান্নায় ব্যস্ত এবং ও রুমে বসে বসে ঘুমাচ্ছে। তাজমহল পর্ব

আমরা বাসায় এসেছি এটাও টের পাইনি ওর আম্মু দৌড়ে এসে দরজা খুলে দেখলো আমি এবং আমার বন্ধু বন্ধু প্রথমবার বাসায় এসেছে কিন্তু ওদের বাসা অনেক আগে থেকেই চিনে যেহেতু আমরা একই ভার্সিটিতে পড়ি তাই বাসা চিনে ওর আম্মু আমাকে চিনে কিন্তু ওদের বাসায় এই প্রথমবার ওর আম্মুর সাথে আমার ফোনালাপ হয়েছিল এবং মুনিয়া কে নিয়ে বেশ কয়েকবার মার্কেটে গিয়েছিল তখন দেখা করেছিলাম ওই থেকে ওর আম্মু আমাকে চিনে আজকে ওদের বাসায় প্রথম আসলাম আমাকে দেখেই বলে কিরে তুমি কেমন আছো এবং এই সময় বাসায় আসলে কেন কোন সমস্যা হয়েছে কি? তাজমহল পর্ব

আরো পড়ুনঃ  ভালবাসার তাজমহল পর্ব-৮

ভালবাসার তাজমহল পর্ব-৪

আমি বললাম সমস্যা তো আপনার মেয়ে করে রেখেছে ও এখন কোথায় আছে আমাকে একটু বলে আমি ওরে আচ্ছা করে একটা মাইক দিয়ে আসি। আন্টি বলল ওই রুমে ঘুমিয়ে আছে দেখো কি হচ্ছে জানিনা খাওয়া-দাওয়া করছে না সারাদিন পড়ে পড়ে ঘুম আসছে আর মন মনের মতো বসে আছে কিছু জিজ্ঞেস করে বলছে না। কালকে আমাকে জিজ্ঞেস করো আচ্ছা তোমাদের মধ্যে কোন সমস্যা হয়েছে আমি বললাম হ্যাঁ আমাকে একটু সামান্য ভুল বুঝে আমার ওপর বিশাল একটা অভিমান ধারণ করে বসে আছে আমি ওকে কোন ভাবেই বুঝাতে পারছি না। তাজমহল পর্ব

আন্টি বলল ঠিক আছে তুমি যাও ওর সাথে কথা বল আমি আর অপেক্ষা না করে ওর রুমে হুট করে চলে গেলাম চলে গিয়ে দেখি পড়ে পড়ে ঘুম আসছে খুব রকমের আমি জোরে গিয়ে ঠেলা দিলাম এবং হুফুট করে উঠে বসে পড়ল বলল তুমি এখানে কেন আমি বললাম আমার এখন কোথায় থাকার কথা ছিল? তাজমহল পর্ব

আরো পড়ুনঃ  ভালবাসার তাজমহল পর্ব-৯

ওহে আমার বন্ধুর সাইন এই পাশের ড্রয়িং রুমে বসা ছিল এবং আন্টি নাস্তা হয়েছে সেগুলো খাচ্ছে আর ফেসবুকে করছে আমি উনাকে বুঝানোর জন্য ওর রুমে চলে আসলাম। মুনিয়া ঘুম থেকে উঠে হতভম্ব হয়ে গেছে বুঝতে পারেনি অর্থাৎ ডিজার্ভ করে নি আমি এখানে থাকবো মুনিয়া বলল আপনি এখানে কেন আমি বললাম আমি এখানে নাকি আকাশে থাকব দুনিয়ায় বলল আপনার তো অনেক বন্ধু আছে সেখানে থাকেন না কেন আর হাসছে মনে মনে আমি বুঝতে পারলাম মুনিয়া আমাকে দেখে হয়তো রাগ একটু হলেও ভেঙেছে। তাজমহল পর্ব

আমি বললাম ম্যাডাম এত রাগ করা ভালো না আপনি কিন্তু আমাকে হতভম্ব করে ফেলেছেন দেখেন আমার অবস্থা কি আমি এখন পর্যন্ত খাবার খাইনি খাবার আমার পেটের ভিতর যাচ্ছে না আপনি ফোন বন্ধ করে রেখেছেন ফেসবুকে একটিভ আছেন না আপনি কথা বলছেন না আমার অবস্থা কেমন হচ্ছে আপনি বুঝতে পারছেন মুনিয়া বলল আপনি বুঝতে পারছেন যে আমার অবস্থা কেমন হচ্ছে আমি বললাম আপনি তো ভালোই আছেন পড়ে পড়ে ঘুমাচ্ছেন। তাজমহল পর্ব

আরো পড়ুনঃ  ভালবাসার তাজমহল পর্ব-৪

মুনিয়া বললো তাহলে ঘুম কি যথেষ্ট আমি বললাম হ্যাঁ এইতো যাদের শান্তি সুখ তারা এইতো পড়ে পড়ে সুন্দরভাবে ঘুমাতে পারে মুনিয়া বলল হ্যাঁ আমার তো অনেক সুখ এজন্য আমি পড়ে পড়ে ঘুমাচ্ছিলে বললাম হ্যাঁ সেটাই তো দেখতে পাচ্ছি প্রচুর সুখটাই আপনি নাক ডেকে ঘুমাচ্ছেন। মুনিয়া পলাশ আপনি বাসায় ব্যথা কিভাবে আসলেন আম্মু কিছু বলেনি আপনাকে আমি বললাম কি আবার বলবে আমিতো নির্লজ্জ হয়ে গেছি আপনার জন্য আমার তো এখন কিছুই বাদছে না যা ইচ্ছে তাই তো করতে পারতেছি সবই তো আপনার জন্য হচ্ছে আমার। তাজমহল পর্ব

এই গল্পের পরবর্তী পর্বগুলো পড়তে এখানে ক্লিক করুন।